মহারাষ্ট্র - Wikiwand
For faster navigation, this Iframe is preloading the Wikiwand page for মহারাষ্ট্র.

মহারাষ্ট্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

মহারাষ্ট্র
महाराष्ट्र
ভারতের অঙ্গরাজ্য
From top, left to right: Pratapgad Fort (near Mahabaleshwar) located in the Western Ghats, Chhatrapati Shivaji Maharaj Terminus railway station, Painting of Padmapani at Ajanta Caves, Kailasa Temple at Ellora Caves, The Gateway of India, Trimurti sculpture of Elephanta Caves, Shaniwar Wada Fort and Hazur Sahib Nanded

সীলমোহর
ভারতের মানচিত্রে মহারাষ্ট্রের অবস্থান
স্থানাঙ্ক (মুম্বাই): ১৮°৫৮′ উত্তর ৭২°৫২′ পূর্ব / ১৮.৯৬° উত্তর ৭২.৮৬° পূর্ব / 18.96; 72.86স্থানাঙ্ক: ১৮°৫৮′ উত্তর ৭২°৫২′ পূর্ব / ১৮.৯৬° উত্তর ৭২.৮৬° পূর্ব / 18.96; 72.86
দেশ ভারত
অঞ্চলপশ্চিম ভারত
স্থাপনা১ মে ১৯৬০ (মহারাষ্ট্র দিবস)
রাজ্যের রাজধানীমুম্বাই
সরকার
 • রাজ্যপালভগৎ সিং কোশারি
 • মুখ্যমন্ত্রীউদ্ধব ঠাকরে (শিব সেনা)
 • হাইকোর্টবম্বে হাইকোর্ট
আয়তন
 • মোট৩,০৭,৭১৩ বর্গকিমি (১,১৮,৮০৯ বর্গমাইল)
এলাকার ক্রম৩য়
জনসংখ্যা (২০১১)[১]
 • মোট১১,২৩,৭২,৯৭২
 • ক্রম২য়
 • জনঘনত্ব৩৭০/বর্গকিমি (৯৫০/বর্গমাইল)
বিশেষণমারাঠি
সময় অঞ্চলভারতীয় প্রমাণ সময় (ইউটিসি+০৫:৩০)
আইএসও ৩১৬৬ কোডভা-মহা
যানবাহন নিবন্ধনএমএচ-**-****
মাউসূবৃদ্ধি ০.৫৭২[২] (মধ্যম)
মাউসূ১২তম, GDP $২৮৮ বিলিয়ন (২০১৫) অর্থনৈতিক অবস্থান ১ম
সাক্ষরতা৮২.৯ (৬ষ্ঠ)
লিঙ্গানুপাত৯২৯ /১০০০ (২০১১)[৩]
দাপ্তরিক ভাষামারাঠি[৪][৫]
ওয়েবসাইটwww.maharashtra.gov.in
ব্রিটিশ কালে ও পরের বম্বে রাজ্য (বর্তমান মুম্বাই) ভেঙে বর্তমান মহারাষ্ট্র ও গুজরাট রাজ্য গঠিত হয়েছে। বম্বে রাজ্য বিভজন আইন ১৯৬০[৬]

মহারাষ্ট্র (মারাঠি: महाराष्ट्र মাহারাষ্ট্রা আ-ধ্ব-ব: [məharaːʂʈrə]) ভারতের পশ্চিম দিকের একটি রাজ্য। মহারাষ্ট্র ভারতের দ্বিতীয় সর্বাধিক জনবহুল রাজ্য পাশাপাশি দ্বিতীয় সর্বাধিক জনবহুল দেশ মহকুমা। ১৯৬০ সালের ১ মে এই দ্বিভাষিক বোম্বাই রাজ্যকে বিভক্ত করে সংখ্যাগুরু মারাঠি-ভাষী মহারাষ্ট্র এবং গুজরাতি-ভাষী গুজরাত গঠিত হয়েছিল। রাজ্যের রাজধানী মুম্বই, ভারতের সর্বাধিক জনবহুল শহুরে অঞ্চল। গোদাবরী এবং কৃষ্ণা রাজ্যের দুটি প্রধান নদী। মারাঠি সর্বাধিক বিস্তৃত ভাষা এবং এটি রাজ্যের সরকারী ভাষাও।

৩০৭,৭১৩ বর্গ কিমি (১১৮,৮০৯ বর্গ মাইল) জুড়ে বিস্তৃত, এটি ভারতের অঞ্চল অনুসারে তৃতীয় বৃহত্তম রাষ্ট্র। মহারাষ্ট্রের পশ্চিমে আরব সাগর, দক্ষিণে কর্ণাটকগোয়া রাজ্য, দক্ষিণে পূর্বে তেলঙ্গানা এবং উত্তরে ছত্তিশগড়, উত্তরে গুজরাতমধ্যপ্রদেশ এবং ভারতের কেন্দ্রীয় অঞ্চল দাদরা ও নগর হাভেলি সীমানা রয়েছে। এবং উত্তর-পশ্চিমে দামান ও দিউ। [৭]

নাগপুর রাজ্য আইনসভার শীতকালীন অধিবেশন আয়োজন করে। রাজ্যের তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর রয়েছে, ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (মুম্বাই), ডাঃ বাবাসাহেব আম্বেদকর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (নাগপুর), এবং পুনে বিমানবন্দর (লোহেগাঁও, পুনে)। রাজ্যে তিনটি রেলওয়ের সদর দফতর রয়েছে। মধ্য রেলপথ (ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ টার্মিনাস), কোঙ্কন রেলওয়ে (সিবিডি বেলাপুর) এবং পশ্চিম রেলপথ (চার্চগেট)। রাজ্যের হাইকোর্ট যেমন- বোম্বাই হাইকোর্ট মুম্বাইতে অবস্থিত।

ভারতীয় স্বাধীনতার পূর্বে মহারাষ্ট্রের কালানুক্রমিকভাবে সাতবাহন রাজবংশ, রাষ্ট্রকূট রাজবংশ, পাশ্চাত্য চালুক্য, দাক্ষিণাত্য, মুঘল এবং মারাঠা এবং ব্রিটিশরা শাসিত ছিল। এই শাসকদের রেখে যাওয়া ধ্বংসাবশেষ, স্মৃতিসৌধ, সমাধি, দুর্গ এবং উপাসনালয়গুলি রাজ্য জুড়ে বিস্তৃত। এই রাজ্যে ইউনেস্কোর দুটি ঐতিহ্যবাহী স্থান রয়েছে: অজন্তা ও ইলোরা গুহা। পুনে বেশ কয়েকটি সুপরিচিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উপস্থিতির কারণে 'প্রাচ্যের অক্সফোর্ড' নামে পরিচিত দেশে সর্বাধিক সংখ্যক ওয়াইনারি এবং দ্রাক্ষাক্ষেত্র রয়েছে বলে নাসিক 'ভারতের ওয়াইন রাজধানী' নামে পরিচিত।

ইতিহাস

বর্তমান এই রাজ্য পূর্বতন বোম্বে প্রদেশ-এর অন্তর্গত ছিল। ১৯৬০ সালে বোম্বে প্রদেশ বিভাজিত করে মহারাষ্ট্র ও গুজরাট এই দুই রাজ্য প্রতিষ্ঠিত হয়।

ভৌগোলিক অবস্থান

এই রাজ্যটি ভারতের পশ্চিমে অবস্থিত এবং এটি ভারতের তৃতীয় বৃহত্তম রাজ্য।

প্রশাসনিক বিভাগ

মহারাষ্ট্রের জেলাসমূহের তালিকা

মহারাষ্ট্রের ৩৬টি জেলা ৬ টি বিভাগে ভাগ করা রয়েছে। যথা :

কোঙ্কন বিভাগ নাসিক বিভাগ পুনে বিভাগ অমরাবতী বিভাগ ঔরঙ্গাবাদ বিভাগ নাগপুর বিভাগ
দেবেন্দ্র ফাড়নাবিষ
দেবেন্দ্র ফাড়নাবিষ
বসন্তরাও নায়েক
বসন্তরাও নায়েক
বিলাসরাও দেশমুখ
বিলাসরাও দেশমুখ
মুখ্যমন্ত্রীর জন্মস্থান অনুযায়ী অবস্থান

প্রধান শহরসমূহ

মুম্বাই শহরটি ভারতের মোট চারটি মেট্রোপলিটান শহরের মধ্যে একটি। এ রাজ্যের অন্যান্য জনবহূল শহর নাগপুরপুনে

জনপরিসংখ্যান

এই রাজ্য ভারতের দ্বিতীয় জনবহুল রাজ্য (উত্তর প্রদেশ-এর পর)। ভারতের সর্বাধিক নাগরিক বসতি এই রাজ্যে। এই রাজ্যের জনসংখ্যা ১১ কোটির অধিক।

অর্থনীতি

এই রাজ্য আয়কর প্রদানে দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ অবদান রাখে। প্রায় ৪.৩ লক্ষ কোটি রুপি আয়কর আদায় হয় এখানথেকে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

বিশ্বেশ্বরায়া জাতীয় প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান ভারতীয় তথ্য প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান সর্বভারতীয় চিকিৎসাবিজ্ঞান প্রতিষ্ঠান
বিশ্বেশ্বরায়া জাতীয় প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান
ভারতীয় তথ্য প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান
সর্বভারতীয় চিকিৎসাবিজ্ঞান প্রতিষ্ঠান
ভারতীয় তথ্য প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান
ভারতীয় তথ্য প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান
প্রধান শিক্ষাঙ্গনগুলোর অবস্থান

খেলাধুলা

ক্রিকেট

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ-এ মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দল এই রাজ্যের প্রতিনিধিত্ব করে।

পরিবহণ

রেল

মধ্য রেলপশ্চিম রেল-এর সদর দপ্তর এই রাজ্যের মুম্বাই শহরে অবস্থিত।

তথ্যসূত্র

  1. "census of india"ভারতের জনগণনা,২০১১ভারত সরকার। ৩১ মার্চ ২০১১। ৩ এপ্রিল ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১১ 
  2. "India Human Development Report 2011" (PDF)। ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১২। ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 
  3. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; sex ratio নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  4. "Trivia"Maharashtra Tourismমহারাষ্ট্র সরকার। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০০৭ 
  5. "The Maharashtra Official Languages Act, 1964" (PDF)বম্বে হাইকোর্ট। ২ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০১৫ 
  6. The Bombay Reorganisation Act 1960। সংগ্রহের তারিখ May 2015  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  7. "Maharashtra Tourism"। ১৮ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
{{bottomLinkPreText}} {{bottomLinkText}}
মহারাষ্ট্র
Listen to this article